1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. mshc@hotmail.co.uk : ইউকে বিডি২৪ : ইউকে বিডি২৪
  3. : :
  4. zufgvwrswv@bqocm.com : i30snk19ry cja1ten1jc : i30snk19ry cja1ten1jc
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৩৫ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
#ঘরে_থাকুন, নিরাপদ থাকুন! নিয়মিত হাত পরিষ্কার করুন, অন্যের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন, সচেতন থাকুন।

২০৩০ ‘র মধ্যে দারিদ্র্যের হার শূন্যে নামবেঃ- পরিকল্পনামন্ত্রী

  • আপডেট করা হয়েছে সোমবার, ২৪ জুন, ২০১৯
  • ৫৩০ বার পড়া হয়েছে

সংসদে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, মাত্র কয়েক দশক আগেও বাংলাদেশে অনাহারী-অর্ধাহারী মানুষের যে ছবি ভেসে উঠত এখন আর সেই দৃশ্য চোখে পড়ে না। দেশে ২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র্যের হার শূন্যের কোটায় আনা সম্ভব হবে।

সোমবার (২৪ জুন) বিকেলে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ শহিদ ইসলামের টেবিলে উত্থাপিত এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন। স্পিকারের সভাপতিত্বে বিকাল ৫টায় এ অধিবেশন শুরু হয়।

মন্ত্রী জানান, ২০০৫ সালে দারিদ্রের হার ছিল ৪০ শতাংশ এবং ২০১০ এ দারিদ্র্যের হার ৩১.৫ হতে ২০১৮ সালে হ্রাস পেয়ে দাঁড়িয়েছে ২১ দশমিক ৮ শতাংশে এবং অতি-দারিদ্র্যের হার নেমে এসেছে ১১.৩ শতাংশ। ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বের কাতারে পৌঁছাতে হলে দারিদ্যের হার শূন্যের কোটায় আনতে হবে।

উন্নত বিশ্বের কাতারে পৌঁছতে অর্থনৈতিক ও সামাজিক খাতে বিভিন্ন বিষয়কে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এ লক্ষ্য পূরণে সরকারের পরিকল্পনাসমূহ দেশ হতে শতভাগ দারিদ্র্য দূরীকরণ, সবার জন্য খাদ্য নিশ্চিতকরণসহ নিম্ন আয়ের জনগণের ভাগ্যের উন্নয়নের জন্য নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ত্বরান্বিত হারে দারিদ্র্য বিমোচন। রাষ্ট্র ও সমাজের আর্থ সামজিক অগ্রগতির কারণে একটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশক দারিদ্র্য বিমোচনে অগ্রগতি।’

জিডিপি ও মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখতে পারে এমন অনেক নতুন খাত যুক্ত করা হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

About Author

শেয়ার করুন

Facebook Comments

আরো সংবাদ পড়ুন