1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. mshc@hotmail.co.uk : ইউকে বিডি২৪ : ইউকে বিডি২৪
  3. : :
  4. zufgvwrswv@bqocm.com : i30snk19ry cja1ten1jc : i30snk19ry cja1ten1jc
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০২:১৫ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
#ঘরে_থাকুন, নিরাপদ থাকুন! নিয়মিত হাত পরিষ্কার করুন, অন্যের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন, সচেতন থাকুন।

ভারতের বিপক্ষে খেলবেন না সাকিব!

  • আপডেট করা হয়েছে সোমবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৮১ বার পড়া হয়েছে

 

বিশ্বকাপে টানা দুই হারের পর ঘুরে দাঁড়ানোর মিশনে আগামী ১৯ অক্টোবর (বৃহস্পতিবার) স্বাগতিক ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। তার আগে অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে নিয়ে বাংলাদেশের আকাশে শঙ্কার কালো মেঘ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে চোটে পড়া সাকিবকে ছাড়াই হয়তো ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামতে হতে পারে টিম টাইগার্সকে। এমনটাই আভাস দিয়ে রাখলেন টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। যদিও খেলতে চান চোটাক্রান্ত সাকিব।

বিজ্ঞাপন

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে চোটে পড়েছিলেন সাকিব। ম্যাচ শেষ না করেই তাকে ছুটতে হয় হাসপাতালে। যে কারণে ম্যাচের শেষদিকে মাঠে ছিলেন না তিনি। পরে জানা যায়, তার পেশিতে চিড় ধরা পড়েছে।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জানায়, মাংসপেশিতে টান খাওয়ায় অস্বস্তিতে ভুগছিলেন সাকিব। যে কারণে নিউজিল্যান্ড ম্যাচের পর তার এমআরআই স্ক্যান করা হয়। অবশ্য সে সময় স্ক্যান রিপোর্টে কী এসেছে তা নিয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি বোর্ড। এবার সেই ইনজুরির সর্বশেষ তথ্য জানাল বিসিবি।

টুর্নামেন্টের ছয়টা ম্যাচ বাকি আছে আমরা চাই না একটা ম্যাচ খেলে পুরো টুর্নামেন্ট মিস করুক। ডাক্তার-ফিজিওদের ওপর এটা নির্ভর করছে। কোচের মতামতের ব্যাপার না এটা। আমরা চাই না যে এটা খেলে সাকিবের ক্যারিয়ারের জন্য সমস্যা হোক বা লম্বা সময়ের জন্য বিপদে পড়ুক। আমরা চাই যে সাকিব যদি চায় এবং ফিজিওদের মত থাকে তাহলে সে খেলবে। এই ম্যাচ যদি তাকে ছাড়াই খেলতে হয় তাহলে আমরা খেলব।
খালেদ মাহমুদ সুজন
আজ সোমবার ভারতের পুনের টিম হোটেলে দুপুরে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। সেখানে অধিনায়ক সাকিবের সর্বশেষ তথ্য জানান সুজন। সেই সঙ্গে একটা আভাসও যেন দিয়ে রাখলেন সুজন। তিনি বলেন, ‘সাকিব এই ম্যাচ খেলে বড় ইনজুরিতে পড়ুক, সেটা চাই না। তবে আরও একবার স্ক্যান করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

‘ধীরে ধীরে হাঁটা ও মাঠে দৌড়ানোর মধ্যে পার্থক্য আছে। যেহেতু সে গত ম্যাচে রান নিতে গিয়েই ব্যথাটা পেয়েছে। কালকে হয়ত এটা দেখবে। সাকিব যেহেতু চোট পাওয়ার পরেও ব্যাটিং করেছে, ১০ ওভারের কোটার বোলিংও করেছে। যদি সে নিজেকে কম্ফোর্টেবল মনে করে তাহলে খেলবে। সাকিব চাইছে খেলতে। আমরা চাই না (তাকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে)। এটা ডিপেন্ড করে ওর শতভাগ ফিটনেসের ওপর’-বলেন টিম ডিরেক্টর।

সুজন আরও বলেন, ‘টুর্নামেন্টের ছয়টা ম্যাচ বাকি আছে আমরা চাই না একটা ম্যাচ খেলে পুরো টুর্নামেন্ট মিস করুক। ডাক্তার-ফিজিওদের ওপর এটা নির্ভর করছে। কোচের মতামতের ব্যাপার না এটা। আমরা চাই না যে এটা খেলে সাকিবের ক্যারিয়ারের জন্য সমস্যা হোক বা লম্বা সময়ের জন্য বিপদে পড়ুক। আমরা চাই যে সাকিব যদি চায় এবং ফিজিওদের মত থাকে তাহলে সে খেলবে। এই ম্যাচ যদি তাকে ছাড়াই খেলতে হয় তাহলে আমরা খেলব।’

এর আগে আজ সকালের দিকে একটি গণমাধ্যমে দাবি করা হয়, সাকিবের ইনজুরি নিয়ে জরুরি আলোচনায় বসে টিম ম্যানেজমেন্ট। যেখানে উপস্থিত ছিলেন দলের কোচিং স্টাফসহ খালেদ মাহমুদ সুজনও। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ বলেই যত চিন্তা। বিশ্বকাপের দৌড়ে থাকতে জয়ের বিকল্প নেই টিম টাইগার্সের।

ক্রীড়াঙ্গন/আবির

About Author

শেয়ার করুন

Facebook Comments

আরো সংবাদ পড়ুন