1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. mshc@hotmail.co.uk : ইউকে বিডি২৪ : ইউকে বিডি২৪
  3. : :
  4. zufgvwrswv@bqocm.com : i30snk19ry cja1ten1jc : i30snk19ry cja1ten1jc
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:১৭ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
#ঘরে_থাকুন, নিরাপদ থাকুন! নিয়মিত হাত পরিষ্কার করুন, অন্যের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন, সচেতন থাকুন।

জয়ের ফিফটিতে ছুটছে বাংলাদেশ

  • আপডেট করা হয়েছে রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১
  • ৩৪৪ বার পড়া হয়েছে

রুহান প্রিটোরিয়াসের ব্যাটে ভর করে বাংলাদেশ ইমার্জিং দলকে ২৬৪ রানের লক্ষ্য দিয়েছে আয়ারল্যান্ড উলভস। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুভ সূচনাই করে টাইগাররা। তবে ৭৯ রানে দুই ওপেনারকে হারালেও মাহমুদুল হাসান জয়ের ফিফটিতে ভর করে অভীষ্ট লক্ষ্যেই ছুটছে বাংলাদেশ।

সাইফ হাসান, তানজিদ হাসান তামিম ও ইয়াসির আলীকে হারিয়ে স্বাগতিকদের সংগ্রহ এখন ৩৩ ওভারে ১৬৫ রান। ফিফটি হাঁকানো মাহমুদুল হাসান জয় ৬৪ রানে এবং তাওহীদ হৃদয় ৩ রানে ক্রিজে আছেন। ইয়াসির আলী চৌধুরী ৩৩ বলে ৩১ রান করে আউট হন। তার আগে তৃতীয় উইকেট জুটিতে জয়ের সঙ্গে মিলে যোগ করেন ৭৭ রান।

এর আগে দলীয় ৪৪ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। অষ্টম ওভারের পঞ্চম বলে মিড উইকেটের সহজ ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ১৮ বলে ১৭ করা তামিম। এরপর মাহমুদুল হাসান জয়কে নিয়ে ৩৫ রানের জুটি গড়ে বিদায় নেন আরেক ওপেনার সাইফ হাসান। ফেরার আগে অধিনায়কের ব্যাট থেকে আসে ৫৩ বলে ৩৬ রান। যাতে ৭৯ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

আজ রোববার সকালে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের বিপক্ষে টস হেরে আগে ব্যাট করে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৬৩ রান তোলে সফরকারীরা। সর্বোচ্চ ৯০ রান করে আউট হন প্রিটোরিয়াস।

করোনার হানায় প্রথম ওয়ানডে স্থগিত হবার পর আজ দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মাঠে নেমেছে দুই দল। চট্টগ্রামে টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের অধিনায়ক সাইফ হাসান। টস হেরেও শুরুটা দারুণ করেন আয়ারল্যান্ডের দুই ওপেনার জেমস ম্যাককালাম এবং রুহান প্রিটোরিয়াস। প্রথম ওয়ানডে চলাকালীন করোনা পজিটিভ হওয়া প্রিটোরিয়াস এদিন দলকে শুভ সূচনা এনে দেয়ার পাশাপাশি খেলেন দারুণ এক ইনিংস।

মুকিদুল-সুমনদের বেশ ভালোভাবেই সামাল দেন আয়ারল্যান্ডের দুই ওপেনার। উদ্বোধনী জুটিতে আয়ারল্যান্ডের স্কোরবোর্ডে ৮৮ রান যোগ করেন এই দুজন। বাংলাদেশকে প্রথম উইকেট এনে দেন সুমন খান। ২১তম ওভারের তৃতীয় বলে উইকেটরক্ষক আকবার আলীর হাতে ক্যাচ তুলে দেন ম্যাককালাম। সাজঘরে ফেরার আগে ৬২ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।

প্রথম উইকেটে বড় জুটি গড়ার পর দ্বিতীয় উইকেটেও আরেকটি দারুণ জুটি গড়েন প্রিটোরিয়াস এবং স্টিফেন ডোহেনি। অধিনায়ক সাইফ হাসান বোলিংয়ে নিয়মিত পরিবর্তন আনলেও দেখেশুনে খেলে দলীয় সংগ্রহ বড় করতে থাকেন প্রিটোরিয়াস এবং ডোহেনি। প্রথম উইকেটে ম্যাককালামের সঙ্গে ৮৮ রানের জুটি গড়ার পর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ডোহেনিকে সঙ্গে নিয়ে গড়েন ৮৫ রানের জুটি।

সেইসঙ্গে সেঞ্চুরির দিকেও এগোতে থাকেন এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। তাঁদের জুটি ভাঙেন রাকিবুল। দলীয় ১৭৩ রানে ডোহেনিকে সাজঘরে ফেরান রাকিবুল। তিনি আউট হন ব্যক্তিগত ৩৭ রান করে। একই ওভারের শেষ বলে সাজঘরে ফেরান সেঞ্চুরির পথে থাকা প্রিটোরিয়াসকেও। ১০ রান দূরে থাকতেই রাকিবুলের বলে বোল্ড হন তিনি। ফলে ১২৫ বলে ৯০ রান করেই থামতে হয় তাকে। ৯টি চার ও একটি ছক্কা হাঁকান তিনি।

এরপর অধিনায়ক হ্যারি টেক্টরের ৩১, শেন গেটকেটের ২৯ ও গ্যারেথ ডেলানির ৮ বলে ১৮ রানের ইনিংসের সৌজন্যে বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে ওই চ্যালেঞ্জিং স্কোড় দাঁড় করায় সফরকারীরা। দলের হয়ে সুমন খান ও রাকিবুল ২টি করে উইকেট লাভ করেন।
সূত্র: একুশে টেলিভিশন

About Author

শেয়ার করুন

Facebook Comments

আরো সংবাদ পড়ুন